বাবার সংসার


অনেক পুরান কথা আমার হৃদয় জুড়ে এলো,
তখন ছিলাম ছোট্ট খোকা, ছিলাম অনেক ভাল।
আমার বাবার অনেক টাকা নাইবা ছিল তখন,
বয়স ছিল দুই ক‚ড়িতে, পূর্ণ যুবক যখন।



বাচ্চা ছিল চারটে তাহার, দুই ছেলে দুই মেয়ে,
সংসারেতে সুখ ছিল, নুন পান্থাই খেয়ে।
সকাল হবার একটু আগে ভোর হতো যবে,
আযান শুনে ঘুম হতে জাগতো সেথায় সবে।



ছেড়া ফারা কায়দা হাতে মাথায় টুপি নিয়ে,
সূর্য্য উঠার অনেক আগে মকতবেতে গিয়ে।
শেখা হতো খোদার কালাম মনযোগ দিয়া,
এখন সেথায় যাচ্ছে সদা, আমার শুন্য হিয়া।



নুরু, পুষি, শিল্পী, ডালিম দুষ্ঠু ছিল ভারী,
দুষ্ঠুমিতে ভালই ছিলাম, ছিলাম প্রথম সারি।
আমার সেকাল শেষ হলো আসল নতুন কাল,
দেখছি আমি দেখছে সবে, সে সংসারের হাল।



এখন বাবার চার মেয়ে, আর চারটি ছেলে,
একটি ছেলেও নেইকো এখন বসে মায়ের কোলে।
ছেলের বয়স চল্লিশেতে বাবার বয়স আশি,
সংসারে আজ ৪টি ছেলে টাকা রাশি রাশি।



পোলাও খোরমা রোষ্ট বিরানী খাচ্ছে মনের মত,
অশান্তিতে ভরে গেছে বিমার শত শত।
কেউবা হল হাটের রোগী, কারো বহুমূত্র,
যদিও কামাই করছে দেদার, বাবার সকল পুত্র।



নূন পান্থার সংসারেতে ছিল মনের সুখ,
অর্থ আছে, খাদ্য আছে, সাথে আছে দূঃখ।
ভাবছি আমি বাবার কালের মনে পড়া স্মৃতি,
আমি কিন্তু বাবা এখন, বাবার আছে নাতি।



(১৫/০৯/২০০৫ তারিখে লিখা)

No comments

Theme images by luoman. Powered by Blogger.