মিরাজ ও ইসলামী রাষ্ট্রের মূলনীতি


মুহাম্মদ নজরুল ইসলামঃঃ আজ মিরাজের দিন। আল্লাহর রাসূল মিরাজ গমন করেন এমন এক সময়ে যখন আর মাত্র কিছুদিন পর তার নেতৃত্বে মদীনায় একটি স্বতন্ত্র রাষ্ট্র গঠিত হবে। এমন অবস্থায় আল্লাহ তার রাসূলকে তার মাহাত্ব এবং ওয়াদাকৃত বস্তু গুলো স্বচক্ষে দেখাবার মনোস্ত করে নিয়ে গেলেন তার সান্বিধ্যে আর ফিরার পর জানিয়ে দিলেন কি হবে প্রতিষ্ঠায়মান রাষ্ট্রের মূলনীতি।
মেরাজ থেকে প্রত্যাবর্তনের পর আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালা নাযিল করলেন ইসলামী রাষ্ট্রের ১৪ দফা ইশতেহার। যার ভিত্তিতে পরিচালিত হবে আগামীর ইসলামী হুকুমাত। যা বর্ণিত হয়েছে কুরআনে হাকীমে সূরা বনী ইসরাঈলে।

মিরাজের ১৪দফা মূলনীতিঃ
(১) তোমরা কারোর ইবাদাত করো না, একমাত্র তাঁরই ইবাদাত করো।
(২) পিতা-মাতার সাথে ভালো ব্যবহার করো।
(৩) আত্মীয়কে তার অধিকার দাও এবং মিসকীন ও মুসাফিরকেও তাদের অধিকার দাও।
(৪) বাজে খরচ করো না।
(৫) যদি তাদের থেকে (অর্থাৎ অভাবী, আত্মীয়-স্বজন, মিসকীন ও মুসাফির) তোমাকে মুখ ফিরিয়ে নিতে হয় এজন্য যে, এখনো তুমি প্রত্যাশিত রহমতের সন্ধান করে ফিরছো, তাহলে তাদেরকে নরম জবাব দাও।
(৬) নিজের হাত গলায় বেঁধে রেখো না এবং তাকে একেবারে খোলাও ছেড়ে দিয়ো না, তাহলে তুমি নিন্দিত ও অক্ষম হয়ে যাবে।
(৭) দারিদ্রের আশঙ্কায় নিজেদের সন্তান হত্যা করো না।
(৮) যিনার কাছেও যেয়ো না, ওটা অত্যন্ত খারাপ কাজ এবং খুবই জঘন্য পথ।
(৯) আল্লাহ‌ যাকে হত্যা করা হারাম করে দিয়েছেন, সত্য ব্যতিরেকে তাকে হত্যা করো না।
(১০) ইয়াতীমের সম্পত্তির ধারে কাছে যেয়ো না, তবে হ্যাঁ সদুপায়ে, যে পর্যন্ত না সে বয়োপ্রাপ্ত হয়ে যায়।
(১১) প্রতিশ্রুতি পালন করো, অবশ্যই প্রতিশ্রুতির ব্যাপারে তোমাদের জবাবদিহি করতে হবে।
(১২) মেপে দেবার সময় পরিমাপ পাত্র ভরে দাও এবং ওজন করে দেবার সময় সঠিক দাঁড়িপাল্লায় ওজন করো।
(১৩) এমন কোন জিনিসের পেছনে লেগে যেয়ো না যে সম্পর্কে তোমার জ্ঞান নেই।
(১৪) যমীনে দম্ভভরে চলো না।

আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালা এমনই ইশতিহারের ভিত্তিতে আমাদের প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশকে একটি সুখী সমৃদ্ধশালী রাষ্ট হিসাবে গড়ার তাওফীক দিন। আমীন।

২০১৩, ০৬ জুন


No comments

Theme images by luoman. Powered by Blogger.